জেলা

গঙ্গারামপুর পৌরসভার তরফে নতুন বৈদ্যুতিক পাওয়ার হাউস হতে চলেছে

  • খবর শিলিগুড়ি,পল মৈত্র,দক্ষিণ দিনাজপুরঃ গঙ্গারামপুর পৌরসভার তরফে পৌরসভার ১০ ওয়ার্ডে তৈরি হতে চলেছে নতুন পাওয়ার হাউস। গঙ্গারামপুর পৌরসভার উন্নয়নের স্বর্ণ মুকুটে আরো একবার নতুন পালক সংযোজন হতে চলেছে। গঙ্গারামপুর পৌরসভার সূত্রের খবর খুব দ্রুতই গঙ্গারামপুর পৌরসভার ১০ নং ওয়ার্ডের একটি বিশেষ জায়গায় বৈদ্যুতিক পাওয়ার হাউস তৈরি হতে চলেছে যার জেলে আলোয় ঝলমল করবে সমগ্র গঙ্গারামপুর শহর। প্রসঙ্গত গঙ্গারামপুরে পাওয়ার হাউজ রয়েছে তবে মাঝেমধ্যে সেখানে বিদ্যুৎ সমস্যায় পড়তে হয় সকলকে পাশাপাশি গঙ্গারামপুর জেলার মধ্যে ব্যবসার কেন্দ্র মাধ্যম ও প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী থেকে শুরু করে পড়ুয়া ও অন্যান্য ক্ষেত্রে বিদুৎ বিভ্রাট নিয়ে সমস্যায় পড়তে হয় সকলকে। পৌরসভার ১৮ টি ওয়ার্ডের পৌরবাসী ব্যবসায়ীদের কথা মাথায় রেখে পৌরসভার তরফ থেকে আগামী কিছুদিনের মধ্যেই নবরূপে তৈরি হতে চলেছে পাওয়ার হাউস। জানা গেছে পৌরসভার ১০ ওয়ার্ডের মোট ৮২ শতক জায়গার উপরে এই পাওয়ার হাউজ তৈরি হতে চলেছে, ইঞ্জিনিয়ার ও অন্যান্য টেকনিশিয়ান থেকে শুরু করে সকলেই জায়গার মাপ যোগ করে গেছেন যা অতি দ্রুত তৈরি করে গঙ্গারামপুর পৌরবাসীদের উপহার হিসেবে দেওয়া হবে বৈদ্যুতিক পাওয়ার হাউস যার ফলে খুশির আবহ সৃষ্টি হয়েছে সমগ্র গঙ্গারামপুর বাসীদের মধ্যে। তারা সকলে গঙ্গারামপুর পৌরসভার এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন। এবিষয়ে গঙ্গারামপুর পৌরসভার প্রশাসক অমলেন্দু সরকার জানান, আমরা সরকারিভাবে নির্দেশ পেয়েছি খুব দ্রুত কাজ শুরু হতে চলেছে গঙ্গারামপুর শহর জেলার একটি অন্যতম ব্যস্ত শহর ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান থেকে শুরু করে সবকিছুই কেন্দ্র মাধ্যম গঙ্গারামপুরে পৌর এলাকায় বিদুৎ বিভ্রাট সমস্যা দূরীকরণ করতে এইবার পৌরসভার তরফ থেকে গঙ্গারামপুর শহরের ১০ নং ওয়ার্ডের বৈদ্যুতিক পাওয়ার হাউসের কাজ শুরু হতে চলেছে যা আমরা খুব দ্রুত পৌরবাসীদের কাছে উপহার হিসেবে তুলে ধরবো। খুব দ্রুত এই পাওয়ার হাউজের কাজ শুরু হবে বলে জানা গেছে। গঙ্গারামপুর পৌরসভার বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজের খবর বার বার সংবাদ মাধ্যমে উঠে এসেছে, এবার পৌরবাসীদের সুবিধার্থে নতুনভাবে গঙ্গারামপুর পৌরসভার তরফ থেকে উপহার হিসেবে পৌরবাসীদের যেমন পাওয়ার হাউজ দেওয়া হচ্ছে তার পাশাপাশি বলাই বাহুল্য গঙ্গারামপুর পৌরসভার উন্নয়নের স্বর্ণ মুকুটে আরো একবার নতুন পালক সংযোজন হতে চলেছে। এখন শুধুমাত্র নতুন বৈদ্যুতিক পাওয়ারহাউজ এর শুভ উদ্বোধন অপেক্ষায় রয়েছেন এলাকার বাসিন্দারা।