জেলা

বন্দুক হাতে শুধু শত্রু দমনই নয়, এলাকার উন্নয়নেও জোর সিআরপিএফের

কার্ত্তিক গুহঃ ঝাড়গ্রাম জেলার নয়াগ্রামের পাতিনা গ্রাম একসময় ছিল মাওবাদীদের আতুঁড়ঘর। ভয়ে হোক বা বেকারত্বের জ্বালা, গা ভাসিয়েছিল গ্রামবাসীরা। কিন্তু এখন ওই এলাকায় রাস্তাঘাট নির্মাণ ও সার্বিক উন্নয়ন হচ্ছে। মাওবাদীরা চলে গেছে জঙ্গলমহল থেকে। কিন্তু তাদের আদর্শ যাতে কোনওরকমভাবে আবার গ্রামবাসীদের আকৃষ্ট করতে না পারে যৌথবাহিনীর নজর সেদিকেই। তাই শিক্ষিত যুবক ও যুবতিদের স্বনির্ভর করার সাথে সাথে গ্রামবাসীদের অসুবিধা দিকেও নজর আছে সি.আর.পি.এফ ১৬৭ ব্যাটেলিয়নের। বেশ কয়েক বছর ধরেই পানীয় জলের সমস্যায় ভুগছিল গোপীবল্লভপুরের নীচু পাতিনা এলাকা। সি.আর.পি.এফ ১৬৭ ব্যাটেলিয়নের উদ্যোগে এবার সেই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে চলেছে গোপীবল্লভপুরের নীচু পাতিনা এলাকার গ্রামবাসীরা। সি.আর.পি.এফ ১৬৭ ব্যাটেলিয়নের উদ্যোগে বিশুদ্ধ পানীয় জলের আর.ও সিস্টেম এবং পানীয় জলের ট্যাঙ্ক পেয়েছে গ্রামবাসীরা এছাড়াও চাঁদাবিলা গ্রামে সোলার লাইট, খড়িকা এলাকায় সেলাই মেশিন, মেয়েদের জন্য প্যাড তৈরির মেশিন ইত্যাদি প্রদান করা হয়। উপস্থিত ছিলেন ডি আই জি এ কে চতূর্বেদী, ১৬৭ ব্যাটেলিয়নের কামান্ডেন্ট পুরন সিং,পাতিনা ক্যাম্প কামান্ডার ইন্সপেক্টর স্বপন কুমার সমাজপতি,ডি আই জি এ কে চতূর্বেদী জানান আমাদের পরিবেশকে বাঁচাতে হবে কারন আমাদের পরবর্তী প্রজন্ম যাতে ভালভাবে বেঁচে থাকতে পারে । আমরা দশ বছর ধরে এই পাতিনা এলাকায় আছি,আর আমাদের একটাই লক্ষ্য মানুষের সেবা করা আর এলাকায় শান্তির পরিবেশ বজাই রাখা, । আমরা দশ বছর ধরে এই কাজই করে চলেছি এবছর আমরা এলাকায় বিশুদ্ধ পানীয় জলের জন্য আর.ও সিস্টেম লাগিয়েছি এর ফলে গ্রামবাসীদের জলের ফলে আরে শরীর খারাপ হবে না।

ছবিঃ কার্ত্তিক গুহ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *